আক্রান্ত তৃণমূল কর্মীকে হাসপাতালে দেখতে গেলেন প্রাক্তন সাংসদ পার্থপ্রতিম রায়।

0
229

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত দলীয় কর্মীকে দেখতে হাসপাতালে গেলেন প্রাক্তন সাংসদ পার্থ প্রতিম রায়। রবিবার দলীয় কর্মীদের সাথে নিয়ে কোচবিহার মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে যান তিনি।
প্রসঙ্গত, শনিবার মাথাভাঙা ২ নম্বর ব্লকের পারাডুবি এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী ধনীরাম মন্ডলকে প্রানে মরার চেষ্টা করে কিছু বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতী বলে অভিযোগ তৃনমূলের। এর পাশাপাশি তার মাথায় ও শরীরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয় বলেও অভিযোগ। ঘটনায় গুরুতর আহত হয় ওই তৃণমূল কর্মী। এরপরই স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মাথাভাঙ্গা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করে পরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে সেখান থেকে তাকে নিয়ে আসা হয় কোচবিহার মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। বর্তমানে সে ওই সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সেই খবর পেয়ে এদিন তাকে দেখতে হাসপাতালে যান কোচবিহার জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি পার্থপ্রতিম রায়।
এদিন তিনি বলেন, শনিবার রাতে একদল বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতী আমাদের দলীয় কর্মীদের উপর আক্রমণ চালায়। আমরা অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতারের দাবী জানাচ্ছি। নক্কারজনক ভাবে তার মারধর করে। পাথর দিয়ে লাঠি দিয়ে এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে। মাথা সহ গোটা চোখমুখ রক্তাক্ত এবং সারা পিঠে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এই অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে মাথাভাঙ্গা মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তারপর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে কোচবিহার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। আসলে গতকালই একে পারাডুবি অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস পুনর্দখল করে। সমস্ত মানুষ সকল পঞ্চায়েতদের সঙ্গে নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের ফিরে এসেছে। বিজেপি নেতৃত্ব এতে আশঙ্কিত হয়ে একটা সন্ত্রাসের বাতাবরণ সৃষ্টি করেছে।
তিনি আরও বলেন, পরিকল্পিতভাবে বোমাবাজি গুলিসহ এরকম ধারালো অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে আমাদের কর্মীদের আক্রান্ত করছে। আমরা গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে মানুষকে সাথে নিয়ে এর মোকাবিলা করব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here