ক্যানিং পুরাতন বাজারে সিঁদুর খেলায় মাতলেন মাতলা সুন্দরীরা​।

0
330

সুভাষ চন্দ্র দাশ, ক্যানিংঃ —মঙ্গলবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার সুন্দরবনের ক্যানিং-১ ব্লকের পুরাতন বাজারে ৯৬ তম বর্ষে বিজয়া দশমীতে সিঁদুর খেলায় মাতলেন শত শত মাতলা সুন্দরীরা।সুন্দরবনের সোঁদা মাটির নোনা জলের নীল আকাশের স্নিগ্ধতায় সোনালী রোদ্দুরের রং,দুর্বাদলের ওপর ভোরের শিশির বিন্দু,বাতাসে শিউলি ফুলের গন্ধে মাতোয়ারা দুর্গোৎসবের বিজয়া দশমীতে ।শরতের চিরন্তন পরিচয় ফুটিয়ে তুলতে মাতলা সুন্দরীরা দেবী দুর্গাকে বরণ করে নিলেন পান,সিঁদুর,ধান,দুর্বা,মিষ্টি দিয়ে।নিজেরা পরিয়ে দিলেন একে অপরকে সিঁদুর,শাস্ত্রীয় প্রথা মেনে।
মাতলা বাজার ব্যবসায়ীবৃন্দ পরিচালনায় সম্পূর্ণ সাবেকী আদলে প্রাচীনপ্রথা মেনে এই দুর্গাপুজো দীর্ঘদিন যাবৎ হয়ে আসছে।ফলে শুধু মাতলা অঞ্চল নয়,গোটা সুন্দরবনের প্রত্যন্ত এলাকা থেকে মানুষজন এখানে ছুটে আসেন এই পুজোর টানে।সেই লর্ড ক্যানিংয়ের আমল থেকে প্রচীনপ্রথা মেনে এখনও চলেছে এই সাবেকী দুর্গা পুজো।পুজো এই একটি শব্দই দেশ বিদেশে ছড়িয়ে থাকা আপামর বাঙালির মনে আনন্দ এনে দেয়।সারা বছরের সমস্ত রকমের অবসাদ আর গ্লানির উপশম তারা খুঁজে পায় এই একটি শব্দের মধ্যে।তাই সোঁদা মাটির নোনা জলে বিজয়া দশমীতে সিঁদুর খেলায় মাতলেন অসংখ্য মাতলা সুন্দরীরা।যা সর্ব ধর্মের এক অনবদ্য মেল বন্ধন সৃষ্টিকারী মানবীকতার অন্যতম এক সেতুবন্ধন।পুজো কমিটির সহ সম্পাদক অরুন মারিক বলেন “সম্পূর্ণ সাবেকী এবং প্রাচীনপ্রথা মেনে শাস্ত্রমতে নিষ্ঠা সহকারে এই পুজো করা হয়।এবছর ৯৬ তম বর্ষে পদার্পণ করল।তবে একটাই কথা বলতে পারি এইটি থিম পুজো নয়,এটি দুু্র্গাপুজো।তিনি আরও বলেন এই পুজোতে দশমীতে হাজার মহিলারা এখানে এসে মাকে বরণ করে সিঁদুর খেলায় মেতে ওঠে এবং তুলে ধরেন ঐতিহাসিক ক্যানিংয়ের কৃষ্টি-সাংস্কৃতিক।যা সর্ব ধর্মের মেল বন্ধন ঘটায় এই পুজোকে কেন্দ্র করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here