নামখানায় কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়’কে গো ব্যাক ধ্বনি।

0
380

নিজস্ব সংবাদদাতা, নামখানাঃ —বুধবার দুপুরে কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ দফতরের প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করতে যাওয়ার সময় সড়ক পথে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীকে বিক্ষোভ দেখায় এবং গো ব্যাক ধ্বনি দিয়ে ও কালো পতাকা দেখায় তৃণমূলের বেশ কিছু কর্মী সর্মথকরা।বিক্ষোভকারীরা গো ব্যাক ধ্বনি দিতে দিতে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীর উদ্দেশ্য বলেন ৩৬৫ দিন কোথায় থাকেন।৩৬৫ দিনে ৩৬৫ দিন এখানে আসুক।এতোদিন কোথায় ছিল।এদিকে গো ব্যাক ধ্বনিতে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় গাড়ি থেকে নেমে পড়ে।তখনও বিক্ষোভকারীরা তাকে ঘিরে বাবুল সুপ্রিয় গো ব্যাক ধ্বনি দিতে থাকে।পরে পুলিশ এসে বিক্ষোভকারিদের কে সরিয়ে দেয়।ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার নামখানা ব্লকের কলেজ মোড় এলাকায়।স্থানীয় ও রাজনৈতিক সূত্রে জানা গিয়েছে বুধবার দুপুরে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় সড়ক পথে গাড়িতে কলকাতা থেকে কাকদ্বীপ হয়ে নামখানা ব্লকের আসেন বুলবুলের তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করতে।যাওয়ার সময় নামখানার কলেজ মোড়ে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীকে তৃণমূলের কর্মী সমর্থকেরা বিক্ষোভ দেখায় এবং কালো পাতাকা দেখায় ও গো ব্যাক ধ্বনি দেয়।পরে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের ওখান থেকে সরিয়ে দেয়।এদিন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী নামখানার সাত মাইল,আট মাইল,শিবরামপুর অঞ্চল সহ বিভিন্ন এলাকায় ঝড়ের দাপটে​ ক্ষতিগ্রস্ত দুর্গতদের সঙ্গে কথা বলেন।কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী নিজেই মোটরবাইক চালিয়ে প্রত্যন্ত এলাকায় পৌঁছে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের অভিযোগ মন দিয়ে শোনেন।এদিন তিনি নামখানার বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রে ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে​ দেখা করে কথা বলেন।এদিন সন্ধ্যায় বকখালি পৌঁছায় এবং ফ্রেজারগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা এখনও পরিদর্শন করছেন ও দুর্গতদের সঙ্গে কথা বলছেন।কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় অভিযোগ করে বলেন তৃণমূলীরা বিক্ষোভ দেখাবে এইটা আমি আগে থেকে জানতাম।কলকাতা থেকে এখানে এসেছি।আসার পথে সব জায়গায় মানুষের একটাই কথা বলছেন কিছুই পায়নি।প্রশাসনও আসেনি।চাল,ডাল,ত্রিপল পায়নি,ইলেকট্রিক সিটি ব্যবস্থা নেই, কোন আধিকারিক এসে ক্ষতিগ্রস্তদের সাথে কথা বলেনি।যে ত্রাণ শিবির গুলি খোলা হয়েছিল সেখানে নাকি ২ বস্তা করে মুড়ি দেওয়া হয়েছিল,তা ২ মিনিটের মধ্যে লুঠ হয়ে যাচ্ছে।চাল নেই, ডাল নেই তারা আবার বাড়ি ফিরে যাচ্ছে।তিনি আরও অভিযোগ করে বলেন গরীব মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা হয়েছে।কেন্দ্রের কোটি কোটি টাকা পাচ্ছে।সেই টাকায় কাটমানি।আজ এই সমস্ত গরীব মানুষগুলির এই যোজনায় কংক্রীটের পাকা ছাদ ঢালাই পাকা ঘরবাড়ি হলে তাহলে এই ঝড়ে অনেক কম ক্ষতি হত।কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় অভিযোগ করে বলেন প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এখানে আসা।কেন্দ্রীয় স্বারাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ বিকালে ফোন করেছিলেন আমাকে।আমি বলেছি এখানকার​ সমস্ত রিপোর্ট নিয়ে যাচ্ছি, দিল্লীতে গিয়ে তুলে দেবো।এখানকার মিথ্যা কথা বলা হচ্ছে।দিল্লীতে বলা হয়েছে সবার কাছে ত্রাণ পৌঁছে গেছে।কেউ কিছু পায়নি।সেই জন্য নিজেই এসেছি।মন্ত্রী হয়ে হেলিকপ্টারে ঘুরি না,ওই সব করিনা,নিজে গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছি সব জায়গায়।আমাদেরকে মিথ্যা কথা বলা হচ্ছে। দিদি রাত জেগে সব দেখছে।দিদি রাত জেগে কিছুই দেখছে না।দিদির সমস্ত সাঙ্গ পাঙ্গরা রাত জেগে চুরি করছে।এই জন্য দুর্গত ক্ষতিগ্রস্তরা কিছুই পাচ্ছে না।এদিকে এখনও পর্যন্ত কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী ঝড়ের দাপটে বিভিন্ন ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করছেন এবং দুগর্তদের সঙ্গে কথা বলছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here