বি.জে.পি. কর্মী স্বরূপ গড়াইয়ের মৃতদেহ নানুরে নিয়ে যাওয়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ৷

0
67

বীরভূম, ভবানী প্রসাদ রায়:- BJP কর্মী স্বরূপ গড়াইয়ের মৃতদেহ নানুরে নিয়ে যাওয়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ৷ বোলপুর মহকুমা হাসপাতালের সামনে পথ অবরোধ করলেন BJP-র কর্মী-সমর্থকরা ৷ টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা ৷ নেতৃত্বে BJP নেতা অনুপম হাজার ও সৌমিত্র খাঁ ৷ পরিস্থিতি সামাল দিতে মোতায়েন করা হয় পুলিশ ৷
6 সেপ্টেম্বর দলীয় পতাকা লাগানোকে কেন্দ্র করে নানুরের রামকৃষ্ণপুরে তৃণমূল ও BJP কর্মীদের মধ্যে প্রথমে বচসা বাধে ৷ তারপর শুরু হয় সংঘর্ষ । চলে বোমাবাজি ৷ গুলিবিদ্ধ হন স্থানীয় BJP কর্মী স্বরূপ গড়াই ৷ গুরুতর জখম অবস্থায় প্রথমে তাঁকে বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয় ৷ পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় ৷ সেখান থেকে তাঁকে কলকাতায় রেফার করেন চিকিৎসকরা ৷ অন্যদিকে এই ঘটনায় 7 তারিখ স্বরূপবাবুর ভাই অরূপকুমার গড়াই নানুর থানায় তৃণমূল পরিচালিত জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ কেরিম খান সহ 11 জনের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ৷ 9 তারিখ সন্ধেবেলা মারা যান স্বরূপবাবু ৷ কিন্তু পরিবারের অভিযোগ, পরিবারের অনুমতি ছাড়াই গতকাল রাতে পুলিশ কলকাতা থেকে মৃতদেহ বোলপুরে নিয়ে আসে ৷ তাই পরিবার দেহ নিতে অস্বীকার করে ৷ রাতে নানুর থানার তরফে স্বরূপবাবুর বাড়িতে নোটিশ পাঠানো হয় ৷ মৃতদেহ নেওয়ার আর্জি জানানো হয় । পরে সেই নোটিশ ছিঁড়ে দেওয়া হয় ৷ কে বা কারা ছিঁড়ে দিয়েছে জানা যায়নি ৷ উল্লেখ্য 6 তারিখের সংঘর্ষের ঘটনায় উভয়পক্ষের 17 জনকে গ্রেপ্তার করেছে নানুর থানার পুলিশ ৷এদিকে এই ঘটনায় গতকাল থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান BJP কর্মী-সমর্থকরা ৷ তাঁরা দাবি করেন, কেরিম খানকে গ্রেপ্তার করতে হবে ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here