শিক্ষকের অকাল প্রয়ানে শোকের ছায়া।

0
153

পুরুলিয়া, শিবপ্রসাদ মন্ডলঃ- শিক্ষকের অকাল প্রয়ানে শোকের ছায়া। গত 5ই সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস এর দিন বলরামপুরের চ্যাটার্জী টিউটোরিয়ালে একটি অনুষ্ঠানে তিনি আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গাডি শ্রী ভজনাশ্রম উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক যুধিষ্ঠির সিংহ মহাপাত্র সেখানেই তাঁর সেরিব্রাল এটাক হয়|দ্রুততার সহিত তাঁকে বাঁশগড় গ্রামীণ হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে স্থানান্তরিত করে তিনি তিন দিন টাটা মেইন হাসপাতাল এর সি সি ইউ তে ভর্তি থাকার পর আজ রবিবার প্রয়াত হলেন|প্রধান শিক্ষক হিসাবে মাননীয় যুধিষ্টির সিংহ মহাপাত্র ছিলেন ছাত্র শিক্ষকদের নয়নের মনি|বিজ্ঞান বিভাগের এই শিক্ষক 1986সালে সহকারী শিক্ষক হিসাবে এই বিদ্যালয়ে যোগদান করেন, এর আগে উনি মুরাড্ডি উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করতেন 2000সালে উনি ভজনাশ্রম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পদে যোগদান করেন|শিক্ষক হিসাবে তিনি ছিলেন খুব আদর্শবান,ছাত্র ছাত্রী তথা শিক্ষকদের সাথেও ছিল উনার সুমধুর সম্পর্ক, অত্যন্ত দক্ষতার সহিত তিনি দীর্ঘদিন বিদ্যালয় টি পরিচালন করেছেন|তিনি নিজে ছিলেন উদ্ভিদ বিজ্ঞান এর শিক্ষক তাই তিনি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হওয়ার পর সেখানে বিজ্ঞান বিভাগের পড়াশুনা শুরু করেছিলেন |তাঁর অকাল প্রয়ানে এলাকার সমস্ত শিক্ষকসমাজ, ছাত্র ছাত্রী তথা এলাকার সমস্ত জনগণের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে|তাঁর পার্থিব শরীর বিদ্যালয়ে নিয়ে আসার অনেক আগে থেকেই এলাকার শিক্ষক,ছাত্র ছাত্রীরা তাঁর প্রতি শেষ শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য সমবেত হয়ে ছিল,তাঁর মরদেহ বিদ্যালয়ে প্রবেশ এর সঙ্গে সঙ্গেই ,ছাত্র ছাত্রী এবং শিক্ষকদের সমবেত কান্নায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গন ভেসে যায়|এর পর একে একে তাঁর মরদেহে পুষ্পার্ঘ নিবেদন করেন ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক আফাক স্যার, দয়াময় রায়, যুধিষ্টির মাঝি প্রমুখ শিক্ষকগণ, এছাড়াও এলাকার বেশকিছু বিশিষ্ট শিক্ষক সমাজসেবী তাঁর প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানান|শেষ শ্রদ্ধা জানতে এসেছিলেন বলরামপুর এর বিশিষ্ট সমাজসেবী বিমল মাহান্তি,মঞ্জুর খান, ছিলেন বলরামপুর এলাকার আরো কয়েকজন শিক্ষক|মৃত্যু কালে তিনি স্ত্রীএবং ছেলে মেয়েকে রেখে গেলেন|তাঁর মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে বিকালে তাঁর গ্রামীণ নিবাস বরাবাজার থানা এলাকার লক্ষাগোড়া গ্রামে তাঁর অন্তিম সংস্কার সম্পন্ন হবে |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here